হাতে ৫ টাকার নোট থাকলেই বাজিমাৎ, পেতে পারেন হাজার হাজার টাকা!!

0
62
Image-Google

পুরানো জিনিস বা অ্যান্টিক জিনিস জমানোর শখ আছে অনেকের। এই পুরানো জিনিসের মধ্যে আছে পুরানো আমলের নোট বা কয়েনও। তবে এখন আগের মতো নিলাম করে অ্যান্টিক জিনিস বিক্রির চল নেই। এখন এই সমস্ত অ্যান্টিক জিনিস সাধারণত ইন্টারনেটেই বিক্রি হয়। ভারতেও এমন অনেক ওয়েবসাইট আছে যেখানে পুরানো দিনের এই সমস্ত জিনিস বিক্রি হয়।

এমনই পুরানো পাঁচ টাকার নোট আপনার কাছে থাকলে তা বিক্রি করে আপনি বড়লোক হয়ে যেতে পারেন। ২০০২ সালে জারি করা এক বিশেষ ধরণের পাঁচ টাকা এবং ১০ টাকার মুদ্রা বিক্রি করা যাচ্ছে। এই বিশেষ মুদ্রা গু’লিতে মা বৈষ্ণো দেবীর ছবি খোদাই করা আছে। এই ধরণের মুদ্রা গু’লিতে পুরানো জিনিস সংগ্রহকারীরা অনেক টাকা দিচ্ছে।

জানা যাচ্ছে, যারা এই ধরণের কয়েন সংগ্রহ করছে তারা মূলত মা বৈষ্ণো দেবীর ছবির জন্যই তা সংগ্রহ করছে। এটা তাদের ভাগ্যের প্রতীক ‘হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। তাই এই বিশেষ কয়েনের জন্য কয়েক লক্ষ টাকা পর্যন্ত ব্যয় করতেও আগ্রহী অনেকে। এই মুদ্রা খুবই কম পরিমাণে বাজারে আনা হয়েছিল। এছাড়াও 786 সিরিজের নোট গু’লিরও খুব চাহিদা পুরানো জিনিসের বাজারে।

মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষরা এই ধরণের নোট গু’লিকে নিজেদের সৌভাগ্যের প্রতীক বলে মনে করে। ফলে তাঁরা এই নোট গু’লিকে সংগ্রহের জন্য বড় অ’ঙ্কের টাকা দিতেও পিছপা হয়না। ইন্ডিয়ামা’র্ট, olx এইসব ওয়েবসাইটে পুরানো নোট বা কয়েন নিলামের সুবিধা রয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here